ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলায় কারাগারে ‘শিশুবক্তা’ রফিকুল ইসলাম

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় ‘শিশুবক্তা’খ্যাত রফিকুল ইসলাম মাদানীকে কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ। বিষয়টি নিশ্চিত করেন গাজীপুর মেট্টোপলিটন পুলিশের উপ-পুলিশ কমিশনার মোহাম্মদ ইলতুৎ মিশ।

তিনি বলেন, আজ (বৃহস্পতিবার) সকালে রফিকুল ইসলামের বিরুদ্ধে গাজীপুরের গাছা থানায় র‌্যাব-১ এর নায়েক সুবেদার আবদুল খালেক বাদি হয়ে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করেন।

এ মামলায় তাকে আদালতে হাজির করা হলে আদালতের বিচারক সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. শরিফুল ইসলাম জেল-হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন। আদালতের রায় অনুযায়ী তাকে কারাগারে পাঠায় পুলিশ।
গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের সহকারী পুলিশ কমিশনার (প্রসিকিউশন) শুভাশীষ ধর বলেন, গাজীপুর চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে পাঠানো হলে আদালতের বিচারক শরিফুল ইসলাম তাকে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।


রাষ্ট্রবিরোধী উস্কানিমূলক বক্তব্যের অভিযোগে রফিকুল ইসলাম মাদানীকে বুধবার (৭ এপ্রিল) দুপুরে নেত্রকোনা থেকে আটক করে র‌্যাব। তার গ্রামের বাড়ি নেত্রকোনায়। তিনি বিএনপি-জামায়াত জোটের শরিকদল জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের অঙ্গ সংগঠন যুব জমিয়তের নেত্রকোনা জেলার সহ-সভাপতি।

এর আগে গত ২৫ মার্চ ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরের প্রতিবাদে যুব অধিকার পরিষদের ব্যানারে বিক্ষোভ করায় রাজধানীর মতিঝিল শাপলা চত্বর এলাকা থেকে তাকে আটক করেছিল পুলিশ। অবশ্য রাতেই তাকে ছেড়ে দেয়া হয়।

error: Content is protected !!