আতঙ্ক তৈরি করতেই গ্রেফতার: নুর

ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর বলেছেন, যাদেরকে গ্রেফতার করা হয় নির্যাতন করা হয়, এখানে আসলে শেষ নয়। বাইরে যারা আছে তাদের মধ্যে আতঙ্ক তৈরি করার জন্য, ভয়ভীতি তৈরি করার জন্য এই গ্রেফতার করা হচ্ছে। আজ সোমবার (৩ মে)দুপুরে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে “আটককৃত ছাত্রদের ঈদের আগেই জামিনে মুক্তির দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি” অনুষ্ঠানে তিনি এ-সব কথা বলেন। “আটককৃত ছাত্রদের ঈদের আগেই জামিনে মুক্তির দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি” আয়োজন করেছে উদ্বিগ্ন অভিবাভক এবং নাগরিক বৃন্দ।


নুরুল হক নুর বলেন, এখন পর্যন্ত আমরা তেমন কোনো রাজনৈতিক দল না। গোনায় ধরার মতো, তেমন প্রভাবশালী সারাদেশের লাখ লাখ নেতাকর্মীর কোন রাজনৈতিক সংগঠনও না। আমরা কোটা সংস্কার থেকে ছাত্রদের বিভিন্ন দাবি-দাওয়া নিয়ে এবং রাষ্ট্রের যেসকল নিপীড়ন কাজকর্ম চলে এইসব বিষয় নিয়ে প্রতিবাদ করেছি। কারণ আমরা জানি এই দত্ত দানবের মত স্বৈরাচারী সরকার ফ্যাসিবাদী সরকার যারা সমস্ত রাষ্ট্রের প্রতিষ্ঠানগুলোকে ধ্বংস করে দিয়েছে। রাষ্ট্রীয় সমস্ত প্রতিষ্ঠানগুলোকে তাদের দল দাস ব্যক্তিদের মাধ্যমে নিংড়ে নিয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে আমাদের মতো ছাত্ররা আন্দোলন করে হাঁটতে পারবে না।

তিনি বলেন, আমরা যদি ভালো কে ভালো না বলতে পারি, খারাপকে খারাপ না বলতে পারি তাহলে আমাদের এই কথা বলার দামটা কোথায়। আজকে আমরা এখানে দাঁড়িয়েছি আমাদের ছাত্ররা কেউ চাঁদাবাজি করেছি? কেউ হত্যা মামলার আসামী? কেউ টেন্ডার বাজি করেছে? আমাদের গ্রেফতারকৃত নেতাকর্মীদের গরুর মত দড়ি দিয়ে বেঁধে আদালতে হাজির করা হয়েছে।

ভাসানী অনুসারী পরিষদের চেয়ারম্যান ও গণস্বাস্থ্যের ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর সভাপতিত্ব করেন।

error: Content is protected !!