ভক্তদের জন্য খেলা ছাড়তে পারছেন না আফ্রিদি

ক্রিকেট বিশ্বের জনপ্রিয় এক খেলোয়াড় পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক ও মারকুটে অলরাউন্ডার শহিদ আফ্রিদি। অবসরের ঘোষণা দিয়েও তা প্রত্যাহার করে বারবার ফিরেছেন ক্রিকেটে। বিদ্রুপেরও কম স্বিকার হননি ২০১৬ সালে পাকিস্তানের হয়ে সর্বশেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলা আফ্রিদি।
আনুষ্ঠানিকভাবে চল্লিশ বছর বয়স ছুঁয়ে ফেলেছেন তিনি। আর তার বয়স নিয়ে যে বিতর্ক দেখা দিয়েছিল, সেটি সত্যি হলে এখন তার বয়স হবে আরো ৩-৪ বছর বেশি।

২০১৮ সালে বিশ্ব একাদশের হয়ে একটি প্রদর্শনীমূলক ম্যাচ খেলেছেন তিনি। যা আন্তর্জাতিক অঙ্গে তার শেষ ম্যাচ। তবে এখনও খেলে যাচ্ছেন ঘরোয়া ফ্র্যাঞ্চাইজিমূলক ক্রিকেটে। চলতি বছরেও খেলেছেন বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ ও পাকিস্তান সুপার লিগে।

আরো কতদিন খেলে যেতে চান আফ্রিদি? পরের পিএসএলেও কি খেলোয়াড় হিসেবে দেখা যাবে তাকে? নাকি আসবেন নতুন ভূমিকায়?

ক্রিকেট পাকিস্তানকে দেয়া সাক্ষাৎকারে এমন প্রশ্নের জবাবে আফ্রিদি জানিয়েছেন, আসলে তিনি এখন পাকাপোক্ত অবসরের কথাই ভাবেন। কিন্তু ভক্তদের ভালোবাসা ও ইচ্ছার কারণে এই ‘কঠোর’ সিদ্ধান্তটি নিতে পারেন না । যে কারণে এখনও খেলে যাচ্ছেন বিভিন্ন ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগে।
তিনি বলেন, সত্যি বলতে, মন চায়, এখন থেমে যাই। কিন্তু ভক্তদের বড় চাওয়া, আমি যেন খেলে যাই, যতদিন ফিট আছি। ভক্তরা মাঠে দেখতে চায় আমাকে। আমার বাড়ির লোকজন, পরিবারের সবাই বলে, ফিটনেস যেহেতু আছে, খেলা যেন চালিয়ে যাই।

এসময় আরো ২-১ বছর খেলা চালিয়ে নেয়ার ব্যাপারে ইঙ্গিত দেন আফ্রিদি। ‘যতদিন উপভোগ করছি খেলতে চাই। একটা ব্যাপার হলো, এখনো ক্রিকেটের প্রতি আমার তীব্র আবেগ আছে। এখনো ক্রিকেটে থাকতে চাই, ক্রিকেটের সঙ্গে চলতে চাই। আরো ২-১ বছর দেখব, ফিটনেস কেমন থাকে। যদি ফিট থাকি তাহলে খেলে যাওয়াই উচিত। উপভোগ করাটাই আসল, জোর করে খেলে যাব না’