পিঠে হৃদয় বয়ে চলছেন এই নারী

সেলওয়া হুসেন। হৃদপিণ্ডহীন ৩৯ বছরের একজন নারী। হৃদপিণ্ডহীন শুনতে অবিশ্বাস্য মনে হলেও এটাই সত্যি। হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে হৃদপিণ্ড হারান তিনি।
ডেইলি মেইল-এ প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন অনুসারে, অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি হন সেলওয়া। বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষা পরে চিকিৎসকরা দেখেন, সেলওয়ার যা পরিস্থিতি, তাতে হৃদযন্ত্র প্রতিস্থাপন না করলে তাকে বাঁচানো যাবে না। কোনো হৃদপিণ্ড না পেলে কৃত্রিম হৃদপিণ্ডই বসাতে হবে শরীরে।

শেষ পর্যন্ত কৃত্রিম হৃদযন্ত্র বসাতে হয় সেলওয়ার শরীরে। ভারতীয় মুদ্রায় খরচ পড়েছে ৭৮ লাখ টাকা। বুকে বসানো ওই হৃদপিণ্ডকে চালাতে পিঠের ব্যাগে রাখতে হয় একটি মোটর। ওই ব্যাগ পিঠেই দিনরাত কাটে সেলওয়ার। কেবল মোটরটিই নয়, দুই সেট ব্যাটারিও থাকে ব্যাগের মধ্যে। কেননা, একটি স্ট্যান্ডবাই ব্যাটারি না থাকলে অন্য ব্যাটারিটির চার্জ শেষ হয়ে গেলেই মহা বিপদ! তাই সাবধানে থাকতেই হয় সেলওয়াকে।

তবে মুখের হাসিটি অমলিন এই সাহসিনীর। ছেলে-মেয়ে নিয়ে ব্যস্ত জীবন কাটাচ্ছেন সেলওয়া। সম্প্রতি তার হাসিমুখের ছবি সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। তার জীবনের গল্প যেন রূপকথার কাহিনি।