Breaking News

কৃষকের ছেলে হচ্ছেন জাপানের প্রধানমন্ত্রী

জাপানের পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী হতে যাচ্ছেন দেশটির বর্তমান মন্ত্রিপরিষদের মুখ্য সচিব ইয়োশিহিদে সুগা। তিনি বিপুল ভোটের ব্যবধানে ক্ষমতাসীন লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির (এলডিপি) প্রধান নির্বাচিত হয়েছেন। ফলে দলীয় প্রধান হিসেবে সুগা পদত্যাগী প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবের স্থলাভিষিক্ত হতে যাচ্ছেন।

দেশটির গণমাধ্যম জাপান টাইমস বলছে, ৭১ বছর বয়সী ইয়োশিহিদে সুগা একজন স্ট্রবেরি চাষীর ছেলে। নিজের মেধা আর কঠোর পরিশ্রমের মাধ্যমে তিনি আজ রাজনৈতিক জীবনের এই পর্যায়ে এসেছেন। জাপানের রক্ষণশীল লিবারেল ডেমোক্রেট পার্টি (এলডিপি) দেশটির ক্ষমতায় আসার পর তাকে মন্ত্রিপরিষদের মুখ্য সচিব করা হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সোমবার ক্ষমতাসীন দলটির নেতৃত্ব নির্বাচনে ভোটাভোটি হয়। সেখানে তিনি নিরঙ্কুশ জয় পান। স্থানীয় সময় সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত দলীয় সাংসদ ও তৃণমূল নেতাদের ভোট গ্রহণ করা হয়। এর পর বিকেলে ভোটের ফলাফল প্রকাশ করা হয়।

এতে দেখা গেছে, মোট ৫৩৪টি ভোটের মধ্যে সুগা পেয়েছেন ৩৭৭ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফুমিও কিশিদা পেয়েছেন ৮৯ ভোট। এ ছাড়া আরেক প্রতিদ্বন্দ্বী সাবেক প্রতিরক্ষামন্ত্রী শিগেরু ইশিবা ৬৮ ভোট পান।

প্রসঙ্গত, জাপানের নিয়ম অনুযায়ী ক্ষমতাসীন দলের নির্বাচিত সভাপতিই দেশটির প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব গ্রহণ করেন। সেই হিসেবে সুগাই হচ্ছেন পরবর্তী জাপানি প্রধানমন্ত্রী।

যদিও আগামী বুধবার দেশটির পার্লামেন্ট সদস্যরা জাপানের পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী নির্বাচন করবেন। তবে পার্লামেন্টে যেহেতু এলডিপির সংখ্যাগরিষ্ঠতা রয়েছে, সেহেতু দলীয় প্রধান হিসেবে তিনি নিশ্চিতভাবেই দেশটির পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি অসুস্থতার কারণে পদত্যাগ করেন শিনজো আবে। জাপানের পরবর্তী সাধারণ নির্বাচন ২০২১ সালের সেপ্টেম্বরে অনুষ্ঠিত হবে। সেই হিসাবে প্রধানমন্ত্রীর ক্ষমতার মেয়াদ মাঝামাঝি অবস্থায় রয়েছে। তাই সরকারের বাকি সময়ে নেতৃত্ব দেওয়ার ওপরই নির্ভর করছে সুগার ভবিষ্যত।