আমাকে কেউ জামায়াত-বিএনপি বানাতে পারবে না : মেয়র আইভী

সোমবার (১৪ সেপ্টেম্বর) নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন ভবনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে

মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের বঙ্গবন্ধুর ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ বই উপহার প্রদান অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি।

মেয়র আইভী বলেন, জাতির পিতার বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক জীবন ছিল। তিনি বাঙালি জাতির জন্য কতটা আত্মত্যাগ করেছেন; অসমাপ্ত আত্মজীবনী আর কারাগারের রোজনামচা বই পড়লে জানা যাবে। মুক্তিযোদ্ধার সন্তানরা বংশগতভাবে

আওয়ামী লীগ হয়ে গেছে। আমার বাবা একজন মুক্তিযোদ্ধা। ছোটবেলা থেকে আওয়ামী লীগ। বিএনপি-জামায়াত কিভাবে করব। আমরা জন্মের পর থেকে শুনি জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু। আমাকে কেউ জামায়াত-বিএনপি বানাতে পারবে না।

মেয়র আইভী বলেন, এই শহরের পরিস্থিতি কেমন ছিল তা সবাই জানেন। আমি কোনো কিছুর ভয় না পেয়ে মানুষের পাশে এসে দাঁড়িয়েছি। এই সিটির মেয়র হওয়া আমার উদ্দেশ্য ছিল না। উদ্দেশ্য ছিল জনসেবা। পত্রিকাগুলো আমার

বিরুদ্ধে যখন লিখতো আমি কিছু মনে করতাম না। গঠনমূলকভাবে সমালোচনা করুক, এটাই চাইতাম। তবে কেবল আমাকে ছোট করার জন্য বা আমি একজন নারী বলে আমাকে যা খুশি তাই বলবেন; সেটা মেনে নেব না।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন- উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার শাহজাহান ভূঁইয়া জুলহাস, সফর আলী ভূঁইয়া স্কুল অ্যান্ড কলেজের চেয়ারম্যান জাকিয়া আলী ভূঁইয়া। অনুষ্ঠানে ২০ জন মুক্তিযোদ্ধার সন্তানের হাতে বঙ্গবন্ধুর ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ বই তুলে দেন মেয়র আইভী।