Breaking News

বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় মেয়র হলেন আওয়ামী লীগের সালমা

টাঙ্গাইলের মির্জাপুর পৌরসভার উপনির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী প্রয়াত মেয়রের স্ত্রী সালমা আক্তার।

মঙ্গলবার (২২ সেপ্টেম্বর) সকাল ১০টায় রিটার্নিং কর্মকর্তা টাঙ্গাইল জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা এ এইচ এম কামরুল হাসান তাকে মেয়র হিসেবে নির্বাচিত ঘোষণা করেন। সালমা প্রয়াত মেয়র সাহাদৎ হোসেন সুমনের স্ত্রী।

জানা গেছে, ৭ সেপ্টেম্বর মির্জাপুর পৌরসভার মেয়র পদে উপনির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। পরের দিন ৮ সেপ্টেম্বর উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মীর এনায়েত হোসেনের কার্যালয়ে উপনির্বাচনে সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থী নিয়ে সাতজন নেতা জরুরি সভা করেন।

সভায় প্রয়াত মেয়র মো. সাহাদৎ হোসেনের স্ত্রী সালমা আক্তারকে দলের প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন নিদে কেন্দ্রের কাছে সুপারিশ করে উপজেলা আওয়ামী লীগ। সালমা আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন পান। ১৩ সেপ্টেম্বর মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিনে তিনি ছাড়া অন্য কেউ প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দেননি। তবে নির্বাচনে অংশ নিতে মোট তিনজন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছিলেন। একক প্রার্থী হিসেবে ১৪ সেপ্টেম্বর সালমার মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণার পর থেকেই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় মেয়র নির্বাচিত হওয়ার সম্ভাবনা দেখা দেয়।

সোমাবার (২১ সেপ্টেম্বর) মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই শেষে মঙ্গলবার সকাল ১০টায় রিটার্নিং কর্মকর্তা এ এইচ এম কামরুল হাসান সালমাকে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় মির্জাপুর পৌরসভার মেয়র ঘোষণা করেন।

গত ১১ ফেব্রুয়ারি মির্জাপুর পৌরসভার মেয়র মো. সাহাদৎ হোসেন ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। তার মৃত্যুতে ১ মার্চ মেয়র পদটি শূন্য ঘোষণা করে স্থানীয় সরকার বিভাগ।

রিটার্নিং কর্মকর্তা ও টাঙ্গাইল জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা এ এইচ এম কামরুল হাসান বলেন, গেজেট প্রকাশের পর নির্বাচিত মেয়রের শপথ গ্রহণ বিষয়ে প্রয়োজনীয় কার্যক্রম শুরু হবে।

সালমা আক্তার শিমুল বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় মেয়র নির্বাচিত হওয়ায় সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি মো. একাব্বর হোসেন এমপি, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মীর এনায়েত হোসেন মন্টু, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মীর শরীফ মাহামুদ, মির্জাপুর পৌরসভার সাবেক মেয়র মুক্তিযোদ্ধা শহীদুর রহমান ও উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক শামীম আল মামুন অভিনন্দন জানিয়েছেন।