উপ-নির্বাচনে জিতলেন ওবায়দুল কাদেরের স্বাক্ষর জালের আসামি

দিনাজপুর সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) পদে উপ-নির্বাচনে বিজয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগের একটি অংশের সমর্থিত প্রার্থী রবিউল ইসলাম সোহাগ; তিনি দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের স্বাক্ষর জা’ল করা মা’মলার আ’সামি।

মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে বেসরকারিভাবে এই নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা করেন সদর উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার মো. জায়েদ ইবনে আবুল ফজল। এর আগে সকাল ৯ টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত নির্বাচনে ভোট গ্রহণ করা হয়।

বেসরকারিভাবে প্রাপ্ত ফলাফলে জানা যায়, দিনাজপুর শহর ও সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সমর্থিত প্রার্থী রবিউল ইসলাম সোহাগ ৫২ হাজার ৪২২ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী জেলা পূজা উদ্যাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক উত্তম কুমার রায় পেয়েছেন ১৫ হাজার ১৬৯ ভোট।

নির্বাচনে অপর প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগ সমর্থিত ফয়সাল ইবনে আজিজ চঞ্চল পেয়েছেন ১২ হাজার ৮৫২ ভোট পান। এতে ৩ লাখ ৬৪ হাজার ৫০৩ জন ভোটারের মধ্যে ৮১ হাজার ৩২৫ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। দিনাজপুর সদর উপজেলার ১২৮টি কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ করা হয়।

জানা যায়, বেসরকারিভাবে নির্বাচিত রবিউল ইসলাম সোহাগ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের স্বাক্ষর জাল করে নিজেকে আওয়ামী লীগের প্রার্থী পরিচয় দেন। পরবর্তীতে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আজিজুল ইমাম চৌধুরী বাদী হয়ে তার বিরু’দ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আ’ইনে মা’মলা করেন। বর্তমানে সোহাগ হাইকোর্ট থেকে জা’মিনে রয়েছেন।

গত ২৯ আগষ্ট সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান কিশোর কুমার রায় মৃ’ত্যুব’রণ করেন। পরে নির্বাচন কমিশন পদটি শুন্য ঘোষণা করেন এবং ১৪ সেপ্টেম্বর উপনির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে।