ভারতের জাতীয় ক্রাশ রাশমিকা

বছর চার আগে ‘কিরকি পার্টি’ সিনেমা দিয়ে অভিনয়ে আত্মপ্রকাশ রাশমিকা মন্দানার। সেই সিনেমায় অভিনেত্রীর অসাধারণ লুক এবং দারুণ অভিনয় দর্শক-সমালোচকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছিল। এরপর থেকেই রাশমিকার নামের পাশে বসে যায় তারকা তকমা।

‘চলো’, ‘গীতা গোবিন্দম’, ‘ডিয়ার কমরেড’ এবং ‘স্যারিলেরু নিকেভ্যারু’র মতো জনপ্রিয় কিছু সিনেমা উপহার দিয়েছেন তিনি।

সেই সুবাদে সাধারণ এক পরিবারে জন্ম নেয়া রাশমিকা এখন আর কন্নড় সিনেমার ক্রাশ নয়, তার খ্যাতি ছড়িয়েছে ভারতজুড়ে। তিনি এখন গোটা ভারতের জাতীয় ক্রাশ। সম্প্রতি ভারতের শীর্ষস্থানীয় গণমাধ্যমগুলো এমনটাই দাবি করছে।

এমনকি গুগলে ভারতের জাতীয় ক্রাশের ছবি খুঁজতে গেলেও দেখা মিলে তার। সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যম পিন্টারেস্ট বলছে, ‘ডিয়ার কমরেড’ সিনেমায় তার অসাধারণ অভিনয়ের পর ভারতের সবচেয়ে বেশিবার গুগলে সার্চ করা অভিনেত্রী নির্বাচিত হয়েছেন তিনি।

করোনার লম্বা বিরতির পর ইতিমধ্যে তারকা অভিনেতা অল্লু অর্জুনের সাথে ‘পুষ্প’ সিনেমার শুটিং শুরু করেছেন
রাশমিকা। সম্প্রতি হায়দরাবাদের শুটিং শেষও করেছেন তারা। বর্তমানে পূর্ব গোদাবরী অঞ্চলের মেরেডুমিলিতে শুটিং করছেন।

প্রসঙ্গত, রাশমিকা ২০১২ সালে মডেলিং শুরু করেছিলেন। একই বছর তিনি ক্লিন অ্যান্ড ক্লিয়ার ফ্রেশ ফেস অব ইন্ডিয়া খেতাব অর্জন করেছিলেন এবং ক্লিন অ্যান্ড ক্লিয়ারের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসেবে যুক্ত হন। তারপর লামোডে ব্যাঙ্গালুরুর

টপ মডেল হান্টে ২০১৩-তে তিনি সেরা টিভিসি মডেলের খেতাব অর্জন করেছিলেন। ২০১৬ সালে যাত্রা করেন চলচ্চিত্রে। বর্তমানে তিনি কন্নড়ি চলচ্চিত্রে সর্বোচ্চ পারিশ্রমিক পাওয়া অভিনেত্রীদের একজন।