Breaking News

অভিমানে প্রেমিক দিলেন ফাঁস, পাশের কক্ষে প্রেমিকা কাটলেন নিজের হাত

সিলেটে প্রেমিকার সঙ্গে ঝগড়া করে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন মিফতাউল ইসলাম নামে এক যুবক। একই সময় আরেকটি কক্ষে ব্লেড দিয়ে হাত কাটেন তারই প্রেমিকা।
শনিবার দুপুরে সিলেট নগরীর পাঠানটুলার নিকুঞ্জ আবাসিক এলাকা থেকে প্রেমিকের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় মিফতাউল ইসলামের প্রেমিকাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তিনি বাগেরহাটের ফকিরহাট উপজেলার বাসিন্দা।

এর আগে, শনিবার দুপুরে ওই তরুণীর বিরুদ্ধে কোতোয়ালি থানায় হত্যার প্ররোচনায় মামলা করেন নিহতের বাবা। মামলার পরিপ্রেক্ষিতে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

মিফতাউল ইসলাম সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার জগদল ইউনিয়নের কদমতলি গ্রামের মতিউর রহমানের ছেলে। তিনি পাঠানটুলার নিকুঞ্জ আবাসিক এলাকার ওই বাসায় চারদিন ধরে প্রেমিকাকে নিয়ে থাকছিলেন বলে জানিয়েছে পুলিশ।

সিলেট কোতোয়ালি থানার ওসি মো. সেলিম মিঞা বলেন, মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার পর মিফতাউল ইসলামের প্রেমিকাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতার তরুণী জানান, সম্প্রতি তার মায়ের সঙ্গে সিলেটে আসেন তিনি। পরে তাকে প্রেমিক মিফতাউল ইসলামের কাছে রেখে চলে যান মা। এ নিয়ে শুক্রবার রাতে তাদের ঝগড়া হয়। এতে দুজন দুই কক্ষে চলে যান। একপর্যায়ে নিজের কক্ষে বসে ব্লেড দিয়ে হাত কাটছিলেন তিনি। আর তার প্রেমিক পাশের কক্ষে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন। পরে দ্রুত এসে প্রেমিককে নামিয়ে ফেলেন তিনি।