Breaking News

কাজে যোগদানের পর সংক্রমিত ৩৮১ পোশাক শ্রমিক

কাজে যোগদানের পর থেকে এখন পর্যন্ত তৈরি পোশাক শিল্প খাতের ৩৮১ জন শ্রমিক মরণব্যাধী করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছেন। এদের মধ্যে ইতোমধ্যে ৪ জন মৃত্যুবরণ করেছেন। আজ রোববার এ তথ্য জানিয়েছে শিল্প পুলিশ।

তাদের তথ্যমতে, তৈরি পোশাক শিল্প মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ, বিটিএমএ, বিকেএমইএ এবং বেপজার আওতাধীন ১৫০টি কারখানায় ৩৮১ জন পোশাক শ্রমিক করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছেন। এদের মধ্যে ৪ জন মৃত্যুবরণ করেছেন এবং ২০২ জন সুস্থ হয়েছেন। বাকিদের কারখানা মালিকের অর্থায়নে চিকিৎসা চলছে।

১৫০ কারখানার মধ্যে বিজিএমইএর আওতাধীন ৬৫টি কারখানায় সংক্রমিত রোগীর সংখ্যা ২১৪ জন। এদের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৭৭ জন এবং মারা গেছেন ৪ জন। বিকেএমইএর ৩১টি কারখানায় ৯৩ জন সংক্রমিত এবং সুস্থ হয়েছেন ৭০ জন। বিটিএমএর ৩টি কারখানায় ৪ জন সংক্রমিত এবং সুস্থ হয়েছেন ২ জন। এ ছাড়া বেপজার ৫১টি কারখানায় ৭০ জন সংক্রমিত এবং সুস্থ হয়েছেন ৫২ জন।



পোশাক কারখানা ছাড়া অন্য আরো ২৪টি কারখানায় ৩৬ জন শ্রমিক মরণব্যাধী এ ভাইরাসটিতে সংক্রমিত হয়েছেন। এদের মধ্যে এখন পর্যন্ত একজনের মৃত্যুর সংবাদ পাওয়া গেছে।

এ বিষয়ে শিল্প পুলিশের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আমজাদ হোসেন বলেন, প্রতিদিনই কারখানাগুলোর তথ্য হালনাগাদ করা হচ্ছে। কতজন সুস্থ হলো, কতজন রোগী শনাক্ত হলো এবং কতজন মৃত্যুবরণ করলো, সবই।

এদিকে করোনার মহামারি রুখতে প্রতিটি কারখানাতেই নিয়মিত হাত ধোয়া, শারীরিক দূরত্ব নিশ্চিত করা, জীবাণুনাশক স্প্রে করাসহ কঠোর স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা হচ্ছে। অধিকাংশ কারখানাতেই আইসোলেশন সেন্টার খোলা হয়েছে। আর যেসব কারখানায় জায়গার স্বল্পতা রয়েছে সেখানকার শ্রমিকরা নিজ বাসায় চিকিৎসা নিচ্ছেন।