আলমের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ আপত্তিকর ও অসামাজিক কু-প্রস্তাব দেয়

ফের বিতর্কে হিরো আলম। তাঁর বিরুদ্ধে এক নার্সকে ফেসবুক মেসেঞ্জারে লাগাতার উত্তেজক টেক্সট পাঠানোর অভিযোগ। শুধু তাই নয়, কু-প্রস্তাব দেওয়ার মতো মারাত্মক অভিযোগ উঠেছে হিরো আলমের বিরুদ্ধে। আর এই ঘটনায় তাঁর বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ জানিয়েছেন ওই মহিলা। অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিশ। খুব শীঘ্রই এই ঘটনায় বিতর্কিত হিরো আলমকে জিজ্ঞাসাবাদ করবে সে দেশের পুলিশ আধিকারিকরা।
জানা গিয়েছে, রাজধানীর হাতিরঝিল থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছেন ওই মহিলা। হাতিরঝিল থানার এসআই সুলতান মাহমুদ স্থানীয় সংবাদমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। স্থানীয় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর মোতাবেক, লিখিত অভিযোগে হিরো আলমের বিরুদ্ধে একের পর এক বিস্ফোরক অভিযোগ করা হয়েছে।



সেখানে উল্লেখ করা হয়েছে যে, মহিলার ফেসবুক আইডির মেসেঞ্জারে ইনবক্সে বগুড়া থেকে হিরো আলম বিভিন্ন আপত্তিকর ও অসামাজিক কু-প্রস্তাব দেয়। মূলত সামা‌জিকভা‌বে হেয় প্র‌তিপন্ন করার জন‌্যেই হি‌রো আলম এই ঘটনা ঘটিয়েছে বলে জানানো হয়েছে।

শুধু তাই নয়, ওই মহিলার অভিযোগ, পুলিশে পভিজগ জানানোর পর থেকে একের পর এক হুমকি আসছে। এমনকি প্রাণে মেরে ফেলারও হুমকি তাঁকে দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ ওই মহিলার। স্থানীয় সংবাদমাধ্যমকে তিনি জানিয়েছেন, আমি এখন নিরপত্তাহীনতায় ভুগ‌ছি। স্থানীয় পুলিশ প্রশাসনের কাছে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা চাওয়া হয়েছে।

এর আগেও গ্রেফতার হন হিরো আলম। স্ত্রীকে মারধরের ঘটনায় গ্রেফতার করা হয় হিরো আলমকে। স্ত্রী সাদিয়া বেগম সুমিকে মারধর করেন হিরো আলম। সাদিয়া অভিযোগ করেন, হিরো আলমের পরকীয়ার প্রতিবাদ করার কারণে তাকে মারধর করা হয়।